বুধবার, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি


করোনা সাথে যুদ্ধ করে মাধবপুরে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনে ব্যস্ত, এসিল্যান্ড আয়েশা আক্তার

পিন্টু অধিকারী: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে যখন সারা বিশ্ব বিপদগামী, ঠিক তখনই হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রথম থেকেই কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা আক্তার। মাধবপুরের জনগনকে নিরাপদ রাখতে দিন-রাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তিনি। হোম কোয়ারেন্টাইন এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে দিনের পর রাতেও ১১ টি ইউনিয়নে এবং মাধবপুর পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে অতন্দ্র প্রহরীর ন্যায় ছুটে চলেছেন তিনি। এসিল্যান্ড আয়েশা আক্তার। উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নে সরকারী নির্দেশ মোতাবেক উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা তাসনূভা নাশতারান এর নির্দেশনায় মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন।

হবিগঞ্জের মাধবপুরে মহামারী করোনা ভাইরাসে উপজেলা নির্বাচন, কৃষি কর্মকর্তা, পুলিশ,ডাক্তার, ব্যাংকার,নার্স, সহ আক্রান্ত হয়েছেন অনেকে। করোনা পরিস্থিতি শুরু থেকে এ পর্যন্ত নানান প্রতিকূল অবস্থায়ও সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন মাধবপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তার।

দুস্থ ও নিম্ন আয়ের পরিবারে সরকারি সহায়তা দেয়ার পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা ও ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণকে উৎসাহিত করেন তিনি। করোনায় যেখানেই কেউ আক্রান্ত হয়েছেন সেখানেই তিনি ছুটে গেছেন। তাঁর এ কার্যক্রমে সর্বমহলে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। বিশেষ করে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তার জনগনের পাশে দাঁড়িয়েছেন, গণসচেতনতা বৃদ্ধি, জনসমাগম এড়াতে বাজার থেকে খেলা মাঠে বাজার স্থানান্তর, সাপ্তাহিক হাট বন্ধ করা, প্রবাস ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিতকরণ, স্বাস্থ্য বিধি মেনে সচেতনতা ও নিয়মিত মোবাইল কোর্ট অভিযান সফল ভাবে করে যাচ্ছেন তিনি।

তিনি নিয়মিত মাধবপুরে বিভিন্ন বাজারগুলো মনিটরিং এর মাধ্যমে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করায় অসাধু ব্যবসায়ীদের ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে শাস্তি প্রদানের পাশাপাশি ব্যাপক ভূমিকা রেখেছেন। তাঁর এসব কাজে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পরামর্শক্রমে ও সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করেছেন পুলিশ, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ। তিনি এ পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতির মধ্যে মাধবপুরে ২৫০টি মামলা পরিচালনা করেন এবং ৮ লক্ষ ৫৯ হাজার ৬শ টাকা জরিমানা আদায় করেন।

জানা গেছে, মাধবপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা আক্তার মাধবপুর ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে যোগদান করেন। তাঁর বাড়ি শ্রীমঙ্গল থানা মৌলভীবাজার জেলা। তিনি ৩৪ তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদে নিয়োগ পান।

এ ব্যাপারে মাধবপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আয়েশা আক্তার বলেন, মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে আমরা চাই মাধবপুরে তথা দেশের মানুষ ভালো থাকুক। তাই নিজের ও পরিবারের কথা চিন্তা না করে করোনা প্রতিরোধে সবাইকে সচেতন করে যাচ্ছি। মহামারী এ করোনা থেকে বাঁচতে হলে সবাইকে সামাজিক দূরত্ব ও মাক্স পরিধান, করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

100 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*