1. admin@ajkerunmocon.com : ajkerunmocon.com :
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৪:৫০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঠাকুরগাঁওয়ে জমি দখলকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন। অস্ত্রোপচার হতে চলেছে বলিউডের অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনর। কুষ্টিয়ার হাউজিংয়ে ভূমিদস্যু কর্তৃক নির্মানাধীন বাড়ি ভাংচুর করে জমি দখলের চেষ্টা। ভেড়ামারা জুনিয়াদহ মামুন মুন্সির প্রতারণার ফাঁদে সর্বশান্ত হয়ে দিশেহারা ভুক্তভোগী পরিবারটি। প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদলের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ। নিরলস কাজ করছেন এমপি ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ। শিলাইদহের কুঠিবাড়ি ও বাঘা যতিনের ভিটা পরিদর্শন করলেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি নিয়ে বর্তমান সময়ের অবস্থা! আসন্ন ইউপি নিবার্চনে ৫নং সলিয়াবাকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী মো:আনিছুর রহমান মিলন। ঝিনাইদহে ১৮ মাসের কাজ ৫ বছর তবু হস্তান্তর হয়নি আড়াই’শ বেড হাসপাতাল ভবন।

সাইকেলে সারাদেশ ভ্রমণ শেষ করেছেন “সিবিএমসিবি” এর শিক্ষার্থী ডাঃ আশিষ

তাসনীমুল হাসান মুবিনঃ
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

 

ইচ্ছা থাকলে উপায় হয়, এই কথার জ্বলন্ত উদাহরণ কমিউনিটি বেজড্ মেডিকেল কলেজ বাংলাদেশ (CBMCB), ময়মনসিংহ এর শিক্ষার্থী ডাঃ আশিষ কুমার মোদক। দুই চাকার সাইকেলে ছুটে চলেছেন দেশের একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে।

২৬ জানুয়ারি ২০২১, এ তিনি ৬৪ জেলা তথা সারা বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষ করে সম্প্রতি নিজের Ash is নামের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে একটি পোস্ট করেন এবং সেখানে বর্ণনা করেন ৬৪ জেলার ভ্রমণ কাহিনী।

ডাঃ আশিষ ফেসবুকে লিখেনঃ আমি ডাঃ আশিষ কুমার মোদক,”কমিউনিটি বেজড্ মেডিকেল কলেজ,বাংলাদেশ (CBMCB,Mymensingh)” থেকে আমার এমবিবিএস শেষ করি।থার্ড প্রফের পর থেকে আমি সাইক্লিং শুরু করি।তারপর আমার সারা বাংলাদেশ সাইকেলে ঘুরার একটা স্বপ্ন পেয়ে বসে।

ফাইনাল প্রফ পরীক্ষার পর ৬৪ জেলা ঘুরে শেষ করার একটা পরিকল্পনা অনেক আগে থেকেই করা ছিলো।
আমার ভ্রমনের উদ্দেশ্য দেশকে জানা,দেশের প্রতিটি জেলার দর্শনীয় স্থানগুলো দেখা,বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে মিশা।
আমার অবস্থান থেকে যথেষ্ট পরিমান সময় নিয়ে ভ্রমন করার চেষ্টা করেছি।
কতদিন লাগবে এটার চেয়ে,কতটা বেশি সময় নিয়ে দেশকে দেখবো সেটাকেই গুরুত্ব দিয়েছি।খুলনা থাকতে আমার এমবিবিএস এর রেজাল্ট দিয়েছিলো,এর আগে যথেষ্ট পরিমাণ সময় নিয়ে প্রায় সবগুলো জেলার দর্শনীয় স্থানে যাওয়ার চেষ্টা করেছি।

আমার এই ৬৪জেলার ভ্রমনের প্রধান শ্লোগান ছিলো “গাছ লাগান,পৃথিবী বাঁচান”
এরকম শ্লোগান নিয়ে অনেকেই গেলেও সময় সুযোগের অভাবে গাছ লাগাতে পারে না।

তবে আমি নিজ খরচে প্রায় ২০০+ গাছ লাগিয়েছি,৫০+ জেলায়।গাছগুলো লাগিয়েছি স্কুল,কলেজ,ভার্সিটি,মেডিকেল কলেজ,দর্শনীয় স্থান,মাদ্রাসা ও মসজিদে।এমন স্থানে গাছ লাগিয়েছি যেন গাছগুলো নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।
আশা করি সবগুলো গাছই যথেষ্ট পরিচর্চা পাবে।

এভাবে সাইকেলে ট্রাভেলিং করে আবার গাছ লাগানো একটা বাড়তি ঝামেলা মনে হতে পারে।তবে আমি এই ঝামেলাটাকে খুবই উপভোগ করেছি,সবার কাছে ভালোবাসা এবং দোয়া পেয়েছি।কাজটার প্রসংশা করেছেন সব বয়সের,সকল পেশার মানুষ।
এটাই আমার এবারের ভ্রমনের সবচেয়ে বড় অর্জন।

আমি দেশ ভ্রমন করেছি দেশের অদেখা সৌন্দর্য গুলো দেখার জন্য,অজানা কিছু জানার উদ্দেশ্যে।
এই ভ্রমনে আমি আমার পরিবার থেকে যথেষ্ট সাপোর্ট পেয়েছি,আমার পরিবারের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।
সারা দেশে সবার কাছে অনেক সাপোর্ট,উৎসাহ এবং সহযোগিতা পেয়েছি।সবাইকে হৃদয়ের অন্তঃস্থল থেকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

আর যার কাছে সবচেয়ে বেশি সাপোর্ট,উৎসাহ এবং সহযোগিতা পেয়েছি আমার বন্ধু Mohammad Sabbir Hossain

(উল্লেখ্যঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শিক্ষার্থী মোহাম্মদ সাব্বির হোসেনও সাইকেলে সারাদেশ ভ্রমণ সম্পন্ন করেছে)

যেহেতু মেডিকেলে পড়তাম,তাই একাডেমিক ছুটি একটু কম হওয়ায় ঈদ এবং পুজার ছুটিতে সিলেট বিভাগ এবং উত্তরবঙ্গের কিছু জেলা সহ ২২টি জেলা আগে ঘুরে রাখছিলাম।
এবার ফাইনাল প্রফেশনাল পরীক্ষা ২৫শে নভেম্বর শেষ হওয়ার পর একদিন বিশ্রাম নিয়ে ২৭শে নভেম্বর আমার দ্বিচক্রযানটি নিয়ে বেশিয়ে পড়ি দেশ দেখার নেশায়।
আজকে ২৬শে জানুয়ারী কক্সবাজারের মাধ্যমে আমার ৬৪জেলা ঘুরা শেষ হলো।
হ্যাঁ,আমি পেরেছি,সুস্থভাবে এবং কোনোরকম দূর্ঘটনা ছাড়া আমার মিশন শেষ হয়েছে।

দেশ সফর শেষ,এবার শুরু হবে পেশাগত সফর।
আমি ডাক্তার হয়েছি,সবাই দোয়া করবেন যেন পেশাগত সফরে যেন সফলতা অর্জন করতে পারি।
বড় ডাক্তার হতে পারি আর না পারি,ভালো ডাক্তার যেন হতে পারি।
দোয়া করবেন আমি যেন আমার জীবনের প্রতিটি রোগীকে নিজের পরিবারের মতো মনে করে সেবা করতে পারি এবং প্রতিটি রোগীই যেন আমার কাছে চিকিৎসা নেওয়ার শেষে আমাকে উনাদের পরিবারের মানুষ মনে করেন।

আমার জন্য,আমার বাবা-মা এর জন্য সবাই দোয়া করবেন।

আমার ভ্রমনের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিলো-“গাছ লাগান,পৃথিবী বাঁচান”
“করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে,সতর্ক হোন”

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট