1. admin@ajkerunmocon.com : ajkerunmocon.com :
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:০৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঠাকুরগাঁওয়ে জমি দখলকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন। অস্ত্রোপচার হতে চলেছে বলিউডের অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনর। কুষ্টিয়ার হাউজিংয়ে ভূমিদস্যু কর্তৃক নির্মানাধীন বাড়ি ভাংচুর করে জমি দখলের চেষ্টা। ভেড়ামারা জুনিয়াদহ মামুন মুন্সির প্রতারণার ফাঁদে সর্বশান্ত হয়ে দিশেহারা ভুক্তভোগী পরিবারটি। প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদলের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ। নিরলস কাজ করছেন এমপি ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ। শিলাইদহের কুঠিবাড়ি ও বাঘা যতিনের ভিটা পরিদর্শন করলেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি নিয়ে বর্তমান সময়ের অবস্থা! আসন্ন ইউপি নিবার্চনে ৫নং সলিয়াবাকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী মো:আনিছুর রহমান মিলন। ঝিনাইদহে ১৮ মাসের কাজ ৫ বছর তবু হস্তান্তর হয়নি আড়াই’শ বেড হাসপাতাল ভবন।

যশোরের বেনাপোল পেট্রাপোল বন্দরে তৃতীয় দিনেও আমদানি রফতানি বানিজ্য বন্ধ রয়েছে

মোঃ রোমান, স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

 

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের জীবন-জীবিকা বাঁচাও নামে একটি সংগঠনের পাঁচ দফা দাবি না মানায় তৃতীয় দিনের কর্মবিরতিতে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। তবে এপথে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী যাতায়াত স্বাভাবিক রয়েছে।

জানা যায়, ৩১ জানুয়ারি সকাল থেকে সংগঠনটির দ্বিতীয়বারের মতো অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতির ডাক দিয়ে দুই দেশের মধ্যে সব ধরনের পণ্য আমদানি- রফতানি বন্ধ করে দেয়।

দাবি না মানায় দ্বিতীয় দিনের মতো সোমবার (ফেব্রুয়ারি-১) আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। বাণিজ্য বন্ধ থাকায় দুই পারে বন্দর প্রবেশের অপেক্ষায় শতশত ট্রাক আটকা পড়েছে।

যশোরের বেনাপোল বন্দরের ব্যবসায়ীরা বলেন, ভারতের জীবন-জীবিকা বাঁচাও সংগঠন যৌক্তিক দাবি নিয়ে তারা কর্মবিরতি পালন করেছে।

যশোরের বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের ব্যাংক বিষয়ক সম্পাদক হায়দার আলী বলেন, ভারতীয় সংগঠনটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। বিএসএফসহ পেট্রাপোল বন্দরে কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে বলে জানিয়েছেন তারা।

যশোরের বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার বলেন, ভারতীয় ব্যবসায়ীদের অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে তৃতীয় দিনের মতো বাণিজ্যিক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। আমরা ভারতীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। এর একটি সমাধান হবে।

ভারতেরসংগঠনটির পাঁচটি দফা দাবি হলো:
১. অবিলম্বে পূর্বের মতো হ্যান্ডকুলি ও পরিবহন কুলিদের কাজের পরিবেশ ফিরিয়ে দিতে হবে।
২.সাধারণ ব্যবসায়ী এবং মুদ্রা বিনিময়কারী পরিবহন, ক্লিয়ারিং ও ফরোয়াডিং এজেন্ট ও ট্রাক চালক সহকারীর ওপর বিএসএফ ও অন্য এজেন্সির কর্তৃক নিরাপত্তার নামে অত্যাচার বন্ধ করতে হবে।
৩. বাংলাদেশে পণ্য নিয়ে যাওয়া পরিবহনের ট্রাকগুলো ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খালি করার ব্যবস্থা করতে হবে।
৪. আধুনিকতার অজুহাতে বন্দরের শ্রমিকদের কর্মহীন করা চলবে না।
৫. বাণিজ্যিক স্বার্থে পূর্বের ন্যায় পণ্যবাহী চালক ও সহকারীদের পায়ে হেঁটে পেট্রাপোল ও বেনাপোল বন্দরের মধ্যে যাতায়াতের ব্যবস্থা অব্যাহত করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট