Warning: Creating default object from empty value in /home/ajkerunmocon/public_html/wp-content/themes/LatestNews/lib/ReduxCore/inc/class.redux_filesystem.php on line 29
কুষ্টিয়া কুমারখালীতে পেঁয়াজের বাস্পার ফলন হলেও, দাম কম থাকায় লোকসান গুনতে হচ্ছে সাধারণ কৃষকদের। কুষ্টিয়া কুমারখালীতে পেঁয়াজের বাস্পার ফলন হলেও, দাম কম থাকায় লোকসান গুনতে হচ্ছে সাধারণ কৃষকদের। – doinikajkerunmocon.com
  1. admin@ajkerunmocon.com : ajkerunmocon.com :
  2. milonsaikat32@gmail.com : najmul islam : najmul islam
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ১২:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সিএমপি বায়েজিদ থানার এসআই কাজী রিপন সরকারের বিরুদ্ধে টাকা খেয়ে আদালতে মিথ্যা প্রতিবেদন পাঠানোর অভিযোগ চট্টগ্রাম মহানগর আকবরশাহ থানাধীন বিশ্বকলোনী এলাকাই র‌্যাব-7 অভিযান চালিয়ে অস্ত্র সহ এক যুবক ক গ্রেফতার করে। ২০ কেজি গাজাসহ ঝিনাইদহ গ্রেফতার-১ ঝিনাইদহে ৩০০ পিচ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ০৪ (চার) জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। দৈনিক চার’শ টাকা হাজিরার দাবীতে ঝিনাইদহে পরিচ্ছন্ন কর্মীদের বিক্ষোভ মিছিলঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বিদ্যালয়ের সভাপতি মনোনয়নকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১ লকডাউনে যেভাবে ব্যাংকে লেনদেন করবেন লকডাউন কার্যকরে ঝিনাইদহ পুলিশের অভিযান শুরু।। এক বছরে সৌদিতে চাকরি হারিয়েছেন ১ লাখ ২৯ হাজার প্রবাসী। দিনাজপুরের খানসামায় পরিবারের সাথে অভিমান করে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রীর আত্মহত্যা

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে পেঁয়াজের বাস্পার ফলন হলেও, দাম কম থাকায় লোকসান গুনতে হচ্ছে সাধারণ কৃষকদের।

সাগর হাসান,নিউজ ডেক্সঃ
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৫ বার পড়া হয়েছে

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে পেঁয়াজের বাস্পার ফলন হলেও, দাম কম থাকায় লোকসান গুনতে হচ্ছে সাধারণ কৃষকদের। ব্যাংক থেকে ক্ষুদ্র ঋন নিয়ে পিঁয়াজের চাষ করলেও সেই পিঁয়াজ বিক্রি করে ঋণের টাকা পরিশোধতো দূরের কথা নিজেদের সংসার চালাতে কষ্ট হচ্ছে কৃষকদের। উপযুক্ত দাম না পেয়ে পেঁয়াজ চাষের প্রতি অনিহা প্রকাশ করছে চাষীরা।
কৃষকরা জানান, পেয়াজের ফলন ভালো হয়েছে তবে পেঁয়াজ চাষে বীজ, সার, নিরানী, কৃষক মজুরীসহ বিঘাপ্রতি প্রায় ৩০-৩৫ হাজার টাকা খরচ হয়ে গেছে। আর সেই পেঁয়াজ ঘরে উঠানোর পর বিক্রি করতে পারছেনা ২৫ হাজার টাকাতেও। এই অবস্থায় বিঘাপ্রতি প্রায় ৫ থেকে ৮ হাজার টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে কৃষকদের। পেঁয়াজ চাষ করে যদি লোকসানের মুখ দেখতে হয় তাহলে পরিশ্রম করে এই ফসল চাষে অনিহা প্রকাশ করেন কৃষকরা।
সাধারণ কৃষকদের দাবি পেঁয়াজ চাষে যেই খরচ সেই অনুপাতে পেয়াজের দাম দুইগুন হলে লোকসান থেকে মুক্তি পাবে খেটে খাওয়া সাধারণ কৃষকরা। দাম যদি না বৃদ্ধি করা হয় তাহলে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে বছরের পর বছর লোকসানের মুখই দেখতে হবে।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে থেকে জানা যায়, উপজেলায় এ বছর প্রায় ৫ হাজার ২০ হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ আবাদের লক্ষ্যেমাত্রা ধরা হয়েছে। আর অর্জিত হয়েছে প্রায় ৫ হাজার ২ শ’ ৭০ হেক্টর জমিতে। গতবছরের তুলনায় চলতি বছর পেয়াজের ফলন খুবই ভালো হয়েছে। পেঁয়াজ চাষে যেই খরচ সেই অনুপাতে দাম দুইগুন করলে লোকসান থেকে রেহাই পাবে কৃষক। আর লাভবান হলে পেঁয়াজ চাষে আরো উৎসাহ বাড়বে কৃষকদের।
কুমারখালী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দেবাশীষ কুমার দাস জানান, চলতি বছর পেয়াজের ফলন ভালো হলেও কৃষকরা দাম একটু কম। তবে কৃষি কর্মকর্তা হিসেবে কৃষকদের প্রতি একটা পরামর্শ হলো তারা যাতে যেই পেয়াজগুলো সংরক্ষণ করা যায় তা সংরক্ষণ করে রাখে । ২/৩ মাস পর যখন পেয়াজের দাম একটু দাম বৃদ্ধি পাবে তখন বিক্রি করলে এই ঘাটতি কিছুটা কমবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট