Warning: Creating default object from empty value in /home/ajkerunmocon/public_html/wp-content/themes/LatestNews/lib/ReduxCore/inc/class.redux_filesystem.php on line 29
এ বছর সবজির দাম কম হওয়ায় বিপাকে মানিকগঞ্জের চাষিরা খাটতে হয় হাড়ভাঙা খাটুনি বিক্রি করে হয় না ভ্যান ভাড়াও। এ বছর সবজির দাম কম হওয়ায় বিপাকে মানিকগঞ্জের চাষিরা খাটতে হয় হাড়ভাঙা খাটুনি বিক্রি করে হয় না ভ্যান ভাড়াও। – doinikajkerunmocon.com
  1. admin@ajkerunmocon.com : ajkerunmocon.com :
  2. milonsaikat32@gmail.com : najmul islam : najmul islam
মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সিএমপি বায়েজিদ থানার এসআই কাজী রিপন সরকারের বিরুদ্ধে টাকা খেয়ে আদালতে মিথ্যা প্রতিবেদন পাঠানোর অভিযোগ চট্টগ্রাম মহানগর আকবরশাহ থানাধীন বিশ্বকলোনী এলাকাই র‌্যাব-7 অভিযান চালিয়ে অস্ত্র সহ এক যুবক ক গ্রেফতার করে। ২০ কেজি গাজাসহ ঝিনাইদহ গ্রেফতার-১ ঝিনাইদহে ৩০০ পিচ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ০৪ (চার) জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। দৈনিক চার’শ টাকা হাজিরার দাবীতে ঝিনাইদহে পরিচ্ছন্ন কর্মীদের বিক্ষোভ মিছিলঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বিদ্যালয়ের সভাপতি মনোনয়নকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১ লকডাউনে যেভাবে ব্যাংকে লেনদেন করবেন লকডাউন কার্যকরে ঝিনাইদহ পুলিশের অভিযান শুরু।। এক বছরে সৌদিতে চাকরি হারিয়েছেন ১ লাখ ২৯ হাজার প্রবাসী। দিনাজপুরের খানসামায় পরিবারের সাথে অভিমান করে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রীর আত্মহত্যা

এ বছর সবজির দাম কম হওয়ায় বিপাকে মানিকগঞ্জের চাষিরা খাটতে হয় হাড়ভাঙা খাটুনি বিক্রি করে হয় না ভ্যান ভাড়াও।

মোঃ রানা হামিদ,মানিকগঞ্জ সদর প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪০ বার পড়া হয়েছে

 

পাইকার ও কৃষক সরগরম সন্ধ্যার পরই জমে ওঠে মানিকগঞ্জ জাগীরের সবচেয়ে বড় পাইকারি সবজির আরৎ। সন্ধ্যা থেকেই শীতের সবজি মুলা, কপি, বেগুন, ধনেপাতা, আলু, লাউ, সিম ওবিভিন্ন ধরনের সবজি আসে এখানে বিষমুক্ত সবজি পাওয়া যায় জেলা শহর ঢাকার পাইকারি আরৎ এর কদর একটু বেশি ।

মানিকগঞ্জ বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করে বাজারে ন্যায্যমূল্য না পেয়ে দিশেহারা কৃষক। জেলায় মুলা ৫ টাকা, ফুলকপি ৫ টাকা,আলু ১০ টাকা,টমেটো ১০ টকা ও পাতাকপি ৩/৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। ন্যায্য দাম না পাওয়ায় উৎপাদিত সবজি এখন পানির দামে বিক্রি করছেন কৃষকরা। বাজারে দাম কম তাই চাষিদের লোকসান গুনতে হচ্ছে। সবজির চাষ করে কৃষক দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

কৃষক তারা মিয়া ও আলমগীর জানান, দেশের অন্যান্য জেলায় সবজির চাহিদা না থাকায় স্থানীয় কৃষকরা কম দামে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে। কৃষকরা সবজি নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। স্থানীয় বাজারে যে দামে বিক্রি হচ্ছে তা দিয়ে উৎপাদিত ফসলের খরচের চার ভাগের একভাগ ও উঠে আসবে না এমন কি ভ্যান ভাড়াও উঠছে না বলে জানান তারা।

বাজারের আরৎদার বিল্টু বলেন, শীতের সবজি এবার আমরা পানির দরে বিক্রি করছি। তারা বলেন, মাঠ পর্যায়ে কৃষক তো আরও কম দরে আমাদের কাছে বিক্রি করেছেন। এবারে সবজি চাষে কৃষক লোকসান ছাড়া লাভের মুখ কেউ দেখতে পাবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট