1. admin@ajkerunmocon.com : ajkerunmocon.com :
  2. news@ajkerunmocon.com : ajker unmocon.com : ajker unmocon.com
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

কিশোরগঞ্জ সদরে প্রতিপক্ষের হামলায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

মোঃ রবিউল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ সদর প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: শনিবার, ২২ মে, ২০২১
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

 

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার রশিদাবাদ ইউনিয়নের দামড়বাড়ি গ্রামে প্রতিবেশীর সাথে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় মারাত্মকভাবে আহত হওয়ার পর তিনদিন চিকিৎসাধীন থেকে মারা গেছেন ঐ গ্রামেরই মৃত আফতাব উদ্দীনের ছেলে এমদাদুল হক এম্বার (৫০) নামে এক ব্যক্তি।

শুক্রবার (২১ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিন দিন চিকিৎসাধীন থেকে অবশেষে মৃত্যুর কাছে হার মানেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুরে আকবর হোসেন নামে এক প্রতিবেশীর সাথে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় তিনি মারাত্মকভাবে আহত হন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানা যায়,প্রতিবেশী আকবর হোসেনের সাথে এমদাদুল হক এম্বারের বাড়ির সীমানা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।

উক্ত বিরোধের জের হিসেবে গত মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুর ২টার দিকে এ নিয়ে তাদের দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আকবর হোসেন বাঁশ দিয়ে এমদাদুল হক এম্বারের উপর আঘাত করে। এ সময় আকবরের পরিবারের সদস্যরা শাবল ও হাতুড়ি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে তাকে গুরুতর আহত করে।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় এমদাদুল হক এম্বারকে প্রথমে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

তারপর অবস্থার আরও অবনতি দেখা দিলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (২১ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানা কর্তৃপক্ষ জানায়, এমদাদুল হক এম্বার আহত হওয়ার পর ঘটনার দিনই তার স্ত্রী আয়েশা বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছিলেন। এখন মামলায় ৩০২ ধারা যুক্ত করা হবে এবং হত্যা চেষ্টা মামলার বদলে হত্যা মামলা হিসেবে বিবেচিত হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত